নারায়ন চন্দ্র চন্দ

আওয়ামী লীগ ডাটাবেজ থেকে
Jump to navigation Jump to search
নারায়ন চন্দ্র চন্দ
বাংলাদেশ সরকার
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
৫ জানুয়ারি ২০১৮
পূর্বসূরীমোহাম্মদ ছায়েদুল হক
উত্তরসূরীশ ম রেজাউল করিম
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম১২ মার্চ, ১৯৪৫
ডুমুরিয়া উপজেলা
নাগরিকত্বব্রিটিশ ভারত (১৯৪৭ সাল পর্যন্ত)
পাকিস্তান (১৯৭১ সালের পূর্বে)
বাংলাদেশ
জাতীয়তাবাংলাদেশী
প্রাক্তন শিক্ষার্থীরাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়
পেশারাজনীতিবিদ
ধর্মহিন্দু
আমার এমপি ডট কম.png
আপনার এমপিকে প্রশ্ন করুন!
আপনি কি নারায়ন চন্দ্র চন্দকে কিছু জানাতে চান? বা কোন প্রশ্ন বা যোগাযোগ প্রয়োজন? আপনি আমার এমপি ডট কমে নারায়ন চন্দ্র চন্দকে দেখুন এবং প্রশ্ন করুন

নারায়ণ চন্দ্র চন্দ একজন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের রাজনীতিবিদ, খুলনা -৫ আসনের সংসদ সদস্য এবং সাবেক মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী।[১]

জীবনের প্রথমার্ধ

নারায়ণ চন্দ্র চন্দ খুলনা জেলার ডুমুরিয়া উপজেলায় ১৯৪৫ সালের ১২ মার্চ জন্মগ্রহণ করেছিলেন। তাঁর মাতার নাম রেণুকা বালা চন্দা এবং তাঁর পিতার নাম কালীপদ চন্দ।

শিক্ষা

উলাগ্রামের স্কুলে তাঁর শিক্ষাজীবন শুরু হয়েছিল। বান্দা নবম শ্রেণি পর্যন্ত মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেছিল। তিনি ডুমুরিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে ১৯৬১ সালে ম্যাট্রিক পাস করেন। তিনি ১৯৬৩ সালে দৌলতপুরের বিএল কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন। তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এবং একই বছরে একই বিশ্ববিদ্যালয়ে রাষ্ট্রবিজ্ঞানে অনার্স পেয়েছিলেন। তিনি পরিবেশনার সময় ১৯৭২ সালে তার বিএডি পাস করেন।

পরিবার

তাঁর স্ত্রী রানী চন্দ স্কুল শিক্ষিকা। নারায়ণ চন্দ্র চন্দ তিন পুত্র ও এক কন্যার জনক। বড় ছেলে বিশ্বজিৎ চন্দ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুষদের প্রফেসর ও প্রাক্তন ডিন। সত্যজিৎ চন্দ একজন ব্যবসায়ী এবং কনিষ্ঠ পুত্র অভিজিৎ চন্দ একজন ব্যবসায়ী। একমাত্র কন্যা মরহুম জয়ন্তী চন্দ গৃহবধূ ছিলেন যিনি প্রভাস কুমার দত্ত (বাংলাদেশ ব্যাংকের উপ-মহাব্যবস্থাপক, খুলনা শাখা) এর সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ ছিলেন। তাঁর বড় ভাই দ্বীনবন্ধু চন্দ্র চন্দ শোভনা বিরাজময়ী মাধোমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ছিলেন পেশা নারায়ণ চন্দ্র চন্দ মাস্টার্স পাস করার আগে ডুমুরিয়া নয়াকাটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হিসাবে কর্মজীবন শুরু করেছিলেন। এই স্কুলের প্রথম বর্ষে প্রথম শিক্ষার্থীরা এসএসসি পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ পায়। তিনি ডুমুরিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হিসাবে নিয়োগ পান ৭ই মে। তাঁর অক্লান্ত পরিশ্রমের শেষে ডুমুরিয়ায় এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রটি চালু করা হয়েছিল। এর আগে খুলনা শহরে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা দিতে হতো। তিনি পরিবেশনার সময় ২০০২ সালে তার বিএডি পাস করেন। ২৭ শে মার্চ তিনি চাকরি থেকে অবসর গ্রহণ করেছিলেন।

শিক্ষক নেতা এবং সংগঠক

তিনি মাধ্যমিক শিক্ষকদের একত্র করার জন্য মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতি প্রতিষ্ঠা করেন। প্রতিষ্ঠার সময় তিনি সাধারণ সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন। তিনি ২০০০ সালে প্রত্যক্ষ ভোটে জেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি নির্বাচিত হন। ২ তারিখ পর্যন্ত তিনি এই পদে ছিলেন।

রাজনীতি

পড়াশোনা শেষ করে,আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে যোগ দেন। তিনি থানা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক পদে নিয়োগ পান। তিনি ডুমুরিয়া থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। নির্বাচনের মাধ্যমে তিনি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হন। তিনি সর্বশেষ ২০ টি কমিটিতে প্রত্যক্ষ ভোটে রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হন। তিনি আওয়ামী লীগ খুলনা জেলা শাখার সদস্য।

জন প্রতিনিধিত্ব

তিনি বাংলাদেশের প্রথম ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ডুমুরিয়া উপজেলার ভান্ডারপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন। তিনি টানা ছয়বার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন। নারায়ণ চন্দ্র চন্দ তৎকালীন স্বাস্থ্যমন্ত্রী সালাহউদ্দিন ইউসুফের মৃত্যুর পরে ২৭ ডিসেম্বর,২০০০ এ অনুষ্ঠিত উপনির্বাচনে ডুমুরিয়া-ফুলতলা (খুলনা -৫) আসনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। দলের পক্ষে কঠোর পরিশ্রমী, নিবেদিতপ্রাণ কর্মী, চান্দা ২০০৮ সালের নবম সংসদ নির্বাচনে আবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। ২০১৪ সালের দশম সংসদ নির্বাচনে তিনি তৃতীয়বারের মতো বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছিলেন। তিনি প্রতিমন্ত্রীর পদ পেয়েছেন। এই পদে মৎস্য ও লাইভ স্টকগুলির মধ্যে এবং পরে ২০১৮ সালে তিনি মোহাম্মদ সায়েদুল হকের নেতৃত্বে ছিলেন এবং মৎস্য ও লাইভ স্টক মন্ত্রকের অফিস পেয়েছিলেন।

যোগাযোগ মাধ্যম

  • নারায়ন চন্দ্র চন্দ
  • সংসদ সদস্যওয়ার্ড নং :
  • মোবাইল : ০১৭১১-২১৭৫৪৮
  • ইমেইল : khulna.5@parliament.gov.bd
  • ফ্যাক্স :
  • নিজ জেলা :খুলনা।

তথ্যসূত্র

  1. "নারায়ন চন্দ্র চন্দ পূর্ণ মন্ত্রী হওয়ায় নগর ও জেলা আ'লীগের অভিনন্দন"দৈনিক প্রবাহ। ৬ জানুয়ারি ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ জানুয়ারি ২০১৮ 

অবদানকারীগণ